সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হামিদা রহিম মেমোরিয়াল পরিষদের সহায়তায় বাড়ি পেল অসহায়রা



স্টাফ রিপোর্টারঃ

অনেকের জমি আছে কিন্তু বাড়ি নেই। আবার কারও ঘরের টিন ফুটো হয়ে পানি পড়ে। বাড়ি থাকা আর না থাকা সমান কথা। মৌলভীবাজার সদর উপজেলার এমন ১৫ পরিবারকে ঘর বানিয়ে দিয়েছে হামিদা রহিম মেমোরিয়াল পরিষদ।

পরিষদের ডিরেক্টর রেমিট্যান্সের অগ্রদূত যুক্তরাজ্য প্রবাসী এম. এ. মুকিত এর অধীনে গরবী ও অসহায় পরিবারদের এই বাড়িগুলো নির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে। নিচে পাকা ওপরে টিনের চালা দেওয়া এ বাড়িগুলোয় বারান্দাসহ একটি ঘর। আবার কাউকে জমিও কিনে দেওয়া হয়েছে।

এখন মৌলভীবাজার সদর উপজেলার মালিক মিয়া, সুবহান মিয়া, জিল্লু, লিয়াকত, রিপন, সিদ্দিক, আপ্তাব, আশু মিয়া, সেকুল মিয়া সহ অনেকে পরিবারের দুর্দশা কেটে গেছে। এম.এ মুকিত তাদের ভিটায় নতুন বাড়ি বানিয়ে দিয়েছে। হামিদা রহিম মেমোরিয়াল পরিষদের দেওয়া বাড়ি পেয়ে এখন দারুণ খুশি। এখন আর তাদের মাথা গোঁজার ঠাঁইয়ের জন্য চিন্তা করতে হবে না। তাদের বাড়িতে গেলে কৃতজ্ঞ জানিয়ে তারা এই প্রতিবেদককে বলেন, দোয়া করি, আল্লাহ যেন তাদের ভালো রাখেন।

এম. এ. মুকিত জানান, মানবিক দায়বোধ থেকেই এই কাজ করেছি। যখন দেখি একটা পরিবার ছেলে-মেয়ে নিয়ে ভাঙা ঘরে থাকে তখন খুব কষ্ট লাগে। তাই নিজ চেষ্টায় কাজটি করেছি। ওদের জন্য কিছু করতে পেরে ভালো লাগছে। হামিদা রহিম মেমোরিয়াল পরিষদের পক্ষ থেকে এরকম সহযোগিতা অতীতেও করা হয়েছে এবং ভবিষ্যতেও এমন কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

মৌলভীবাজার সদর উপজেলার জগৎসী গ্রামের বড়বাড়ি এম. এ. মুকিত তার মা ও বাবার নামে হামিদা রহিম মেমোরিয়াল পরিষদ গঠন করেন। এই সংগঠনের পক্ষ থেকে গরীব এবং অসহায় মানুষের পাশে দাড়ান। পরিষদের ডিরেক্টর রেমিট্যান্সের অগ্রদূত যুক্তরাজ্য প্রবাসী এম. এ. মুকিত, এম. এ. মিল্লাদ ও এম. এ. মুবিন রয়েছেন।