মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দৈনিক মৌলভীবাজারে সংবাদ: রেলের সেই আতাসহ ৮ জন বদলি



ডিএমবি ডেস্ক::  

সিলেট রেলওয়ে স্টেশনের ম্যানেজারসহ ৮ জনকে শাস্তিমূলক বদলি করা হয়েছে। কালোবাজারিদের সঙ্গে যোগসাজশ, যাত্রীদের হয়রানি ও তাদের সাথে দুর্ব্যবহারসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে তাদেরকে সিলেট (রেলের পূর্বাঞ্চল) থেকে রাজশাহীতে (রেলের পশ্চিমাঞ্চল) বদলি করা হয়েছে।

জানা গেছে, বাংলাদেশ রেলওয়ে মহাপরিচালকের কার্যালয়ের সংস্থাপন শাখা-১ এর উপসহকারী পরিচালক হাসিবুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক আদেশে বদলি করা হয় সিলেট রেলস্টেশনের ম্যানেজারকে। অন্যদিকে সংস্থাপন শাখা-৩ এর উপপরিচালক সৈয়দ হোসন স্বাক্ষরিত আরেক আদেশে সিলেট রেলস্টেশনের আরো ৭ জনকে বদলি করা হয়।

বদলির বিষয়টি সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. শামসুজ্জামান।

বদলিকৃতরা হলেন- সিলেট রেলস্টেশনের ম্যানেজার আতাউর রহমান, বুকিং সহকারী রেজাউর রহমান, মাসুদ সরকার, সুজন দত্ত, দুলাল মিয়া, স্বস্তি রঞ্জন দাস, আরএনবি (রেল পুলিশ) এর হাবিলদার জানে আলম এবং স্টেশনের রেস্ট হাউসের বাবুর্চি (কুক কাম বেয়ারা) আবু তাহের।

মো. শামসুজ্জামান জানান, এই আটজনকে শাস্তিমূলকভাবে রাজশাহীতে বদলি করা হয়েছে।

জানা গেছে, সিলেট রেলওয়ে স্টেশনে বিভিন্ন অনিয়ম রয়েছে। টিকেট থাকা স্বত্ত্বেও সাধারণ যাত্রীদেরকে কাউন্টার থেকে বলা হয়, ‘টিকেট নেই’। অথচ প্রায় প্রতিদিনই আন্তঃনগর ট্রেন বেশকিছু শূন্য আসন নিয়ে চলাচল করে। আর লোকাল ট্রেনে অবিক্রিত থাকে তারচেয়ে বেশি পরিমাণ টিকেট। সাধারণ মানুষ রেল থেকে পান না কাক্সিক্ষত সেবাও। রেলে নানা অনিয়ম আর অভিযোগ নিয়ে সম্প্রতি অনুসন্ধানে নামে একটি গোয়েন্দা সংস্থা। পরে রেলপথ মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন জমা দেয় তারা। সে প্রতিবেদনে সিলেট রেলস্টেশনে কালেবাজারি চক্রের তালিকায় নাম এসেছে ২২২ জনের। তন্মধ্যে রেলস্টেশনের ম্যানেজার, ভারপ্রাপ্ত ম্যানেজারের নামও আছে।

এ বিষয়ে গত ৪ আগষ্ট, ২০১৯ দৈনিক মৌলভীবাজার ডটকমে সিলেট টু আখাউড়া রেল লাইন: দুর্নীতির হুতা কুলাউড়ার আতা  শিরোনামে একটি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এ প্রতিবেদন নিয়ে তোলপাড় হয়।

সেই নিউজটি পড়ুন:: 

সিলেট টু আখাউড়া রেল লাইন: দুর্নীতির হুতা কুলাউড়ার আতা

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত