বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে লন্ডন মহানগর আওয়ামীলীগের আলোচনা।




লন্ডন: ২০মে,১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট দেশী-বিদেশী ষড়যন্ত্রের স্বীকার হয়ে নরপিচাশ ঘাতকচক্রের বুলেটে সরিবাবারে শাহাদাৎবরণ করেন বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।সেময় বিদেশে থাকায় বেঁচে যান তার দু’কন্যা আজকের প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগ সভাপতি শেখ হাসিনা ও কনিষ্ট কন্যা শেখ রেহানা।দীর্ঘ ছয় বছর নির্বাসনে থাকার পর ১৯৮১ সালের ১৭ই মে শত বাঁধা-বিপত্তি, ঝড়-ঝঞ্ঝা অতিক্রম করে তৎকালীন সামরিক স্বৈরশাসক জিয়াউর রহমানের রক্তচক্ষুকে উপেক্ষা করে জীবনের ঝুঁকি মাথায় নিজ জন্মভূমির মাঠিতে ফেরে আসেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা।
জননেত্রী শেখ হাসিনার ৪০ তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের তাৎপর্য এবং গুরুত্ব স্মরণীয় করে রাখতে বাংলাদেশ আওয়ালীগ ও এর সহযোগী সংগঠন দেশে-বিদেশে দিনটি উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করে।এরই অংশ হিসাবে গত ১৯ মে বুধবার বিকেলে লন্ডন মহানগর আওয়ামীলীগের উদ্যোগে এক ভার্চ্যুয়েল আলোচনা সভার আয়োজন করে।সংগঠনের সভাপতি নুরুল হক লালা মিয়ার সভাপতিত্বে এবং যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আফসার খান সাদেকের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক মন্ত্রী,বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য কর্ণেল (অব:) ফারুক খান এমপি।সভায় যুক্ত হয়ে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ,সহসভাপতি আলহাজ জালাল উদ্দিন,সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক,
সহসভাপতি হরমুজ আলী, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক নঈম উদ্দিন রিয়াজ,সাংগঠনিক সম্পাদক যথাক্রমে সাজ্জাদ মিয়া,ও আব্দুল আহাদ চৌধুরী সহ দলের সিনিয়র নেতৃবন্দ।
এছাড়াও ভার্চ্যুয়েল এ আলোচনায় অংশ নিয়ে বক্তব্য রাখেন লন্ডন মহানগর আওয়ামীলীগসহ বিভিন্ন সহযোগি ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতৃবন্দ।আলোচনা সভার সহযোগিতায় ছিলেন এই সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আলতাফুর রহমান মুজাহিদ।