বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

🕋🌺🇧🇩 চিন্তার কথা ভাবনার কথা; সাংবাদিক রোজিনা প্রসঙ্গ নিয়ে কিছু কথা;।




শাহ ফারুক আহমদ.
৪০ বছরের সংগ্রামে আজ বাংলাদেশ উন্নয়নশীল- শেখ হাসিনা।

আমাদের অর্জন যেন ষড়যন্তকারীরা লুটপাট না করে।ষড়যন্ত্র আবার শুরু হচ্ছে, আওয়ামী লীগকে ক্ষমতাচ্যুত করা। উন্নয়ন আর সহ্য হচ্ছেনা, স্বাধীনতার পরাজিত শত্রুদের।

একশ্রেনীর সরকার বিরোধী পত্র-পত্রিকায় বাংলাদেশের উন্নয়নের কথা নেই শুধু সরকারের বিরুদ্ধে নেতিবাচক কথা।

সাংবাদিক রোজিনা জামিন শুনানি হয়েছে। বিজ্ঞ আদালত সাংবাদিক রোজিনার জামিন বিষয়ে আদেশ রবিবার দেবেন ।মামলা বিচারাধীন সুতরাং আগাম বলা আইনসঙ্গত বলে কিছু মনে করিনা। সত্য চাপা থাকেনা।

আমাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঠিকই বলেছেন সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের গ্রেপ্তারের ঘটনা দুঃখজনক ও অনভিপ্রেত। বিষয়টি নিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে আন্তর্জাতিকভাবে মুখোমুখি হতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।
সেটা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ম্যানেজ করা উচিত ছিল। গুটিকতক লোকের জন্য এই বদনামটা হচ্ছে।’

আমাদের দেখতে হবে আমাদের সংবিধানে আছে মানুষের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করা। মানুষের চিন্তার স্বাধীনতা, চলার, বলার স্বাধীনতা, বাকস্বাধীনতা, সংবাদ পত্রের স্বাধীনতা। আর এই স্বাধীনতা জন্য বঙ্গবন্ধু আজীবন সংগ্রাম করেছেন। কাউকে বিনা কারনে হেনস্থা করা অপমান করা শারীরিক আঘাত করা উঠিত নয়। বিনা বিচারে আটকিয়ে রাখা, মানষিক আঘাত আইনসঙ্গত নয়। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে অনেক দুর অর্থনীতি, উন্নয়ন ইত্যাদিতে। আইনের শাসন নিশ্চিত করা এখন বাংলাদেশের জন্য বিরাট চ্যালেঞ্জ, একশ্রেনীর লোক আছে অযথা বাড়াবাড়ী করে, মানুষকে মানুষ হিসাবে মনে করেনা।
ক্ষমতার পেয়ে অতিরিক্ত আইনের পরিপন্থী কাজ করে। আরোও একশ্রেনীর লোক আছে সরকারে, অতিরঞ্জিত করে মিথ্যা মামলা সাজিয়ে লোকদের হেনস্থা করে, সরকারকে প্রশ্নবিদ্ধ করে সরকারের জনপ্রিয়তায় আঘাত হানে।
আর কিছু অসৎ আমলা আছে চুরিচামারী মানি-লন্ডারিং করে বিদেশে বউ-বাচ্চা পাঠিয়ে বাড়ী গাড়ী করে ফুটানি করে। শুধু আমলা না দেশ থেকে মানি-লন্ডারিং করে চুরিচামারী করে বিদেশে টাকা নিয়ে ঘর বাড়ী কিনে সরকারের বিভিন্ন সেক্টরের ক্ষমতাধর লোকেরা।
দেশের কিছু সংখ্যক অসৎ রাজনৈতিক নেতা, পুলিশ র্যাব ব্যবসায়ী, আমলা দেশ ও জাতির জন্য বিষফোঁড়া। এরা দেশের উন্নয়ন বিরাট অন্তরায়।
এ দেশ যেন বঙ্গবন্ধু, আর লক্ষ লক্ষ মুক্তিযোদ্ধা রক্ত দিয়ে স্বাধীন করেছেন এ সকল দুর্নীতিবাজদের জন্য।

জননেত্রী শেখ হাসিনা বলছেন, এরা হাজার হাজার কোটী টাকা মানি-লন্ডারিং না করলে দেশে আরোও অনেক বড় বড় মেগা-প্রজেক্ট করতাম, দেশের উন্নতি করতে পারতাম। সরকারের ভিতর লুকিয়ে থাকা কিছু চোর ষড়যন্তকারী এদের খুঁজে বাহির করুন।
কারন এরা অনেক সময়, অনেক অনাকাংখিত ঘঠনা ঘঠিয়ে সরকারকে প্রশ্নবিদ্ধ করে।
☘️ শাহ ফারুক আহমদ এ্যাডভোকেট
লন্ডন ২০ মে ২০২১