সোমবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সিলেটে আবারও দফায় দফায় ভূমিকম্প: স্কুলভবনে ফাটল।



সিলেট অফিস: সিলেটে মাত্র এক মিনিটের ব্যবধানে দুই দুই দফা ভূমিকম্পে বন্দরবাজারস্থ প্রাচীন বিদ্যাপীঠ রাজা জিসি হাই স্কুলের দ্বিতল ভবনে ফাটল দেখা দিয়েছে। ওই ভবনের নাম ‘কামরান ভবন’।সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় সিলেট নগরীতে ৩.৮ মাত্রার ভূমিকম্পে এ ফাটল দেখা দিয়েছে বলে জানান বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহা. আব্দুল মুমিত।তিনি জানান, আগের কয়েক দফা ভূ-কম্পনের পর আজ সন্ধ্যার দুই দফা ভূমিকম্পে সিটি সুপার মার্কেট লাগোয়া দ্বিতল ভবনটির ওপর থেকে নিচ পর্যন্ত বড় ফাটল দেখা দিয়েছে। কিছু জায়গায় ফাটল থেকে পলেস্তারা খসে পড়েছে। ফলে বড় ঝুঁকির মুখে পড়েছে স্কুলের এই ভবনটি।প্রধান শিক্ষক জানান, সিলেটের প্রাচীন এই বিদ্যাপীঠ রাজা জিসি হাই স্কুল ১৮৮৬ সালে স্থাপিত হয়। এছাড়া ফাটল ধরা ভবনটির নিচতলা নির্মিত হয় ২০০৬-৭ সালে। পরবর্তীতে ২০১৯ সালে দ্বিতীয় তলার কাজ শেষে ভবনটি স্কুল কর্তৃপক্ষকে বুঝিয়ে দেয়া হয়। আজকের ভূমিকম্পে ওই ভবনের প্রত্যেকটা রুমে ফাটল দেখা দিয়েছে। এমনকি রুমের ভিমেও দেখা দিয়েছে ফাটল।
এদিকে ভবন ফাটলের খবর পেয়ে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী রাজা জিসি স্কুল পরিদর্শন করেছেন। বিষয়টি নিয়ে তিনি সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলেছেন।পূর্বে চিহ্নিত ঝুঁকিপূর্ণ ভবন বন্ধের সময় আর বাড়ানো হবে কিনা জানতে চাইলে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, এই ভবন থেকে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে। এখানে আবেগের কোনো স্থান নেই। আমি আগামীকালই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেবো- ঝুঁকিপূর্ণ সকল ভবন ভাঙবেন, না কী করবেন, তা উনারা সিদ্ধান্ত নিবেন। তা না হলে এরকম অবস্থায় কেউ এসব ভবন-মার্কেটে অবস্থান করতে পারবেন না।এর আগে সন্ধ্যা ৬টা ২৯ মিনিটের দিকে সিলেটে প্রথম মৃদু ভূকম্পন অনুভূত হয়। এর রেশ কাটতে না কাটতেই ৬টা ৩০ মিনিটে আবারও কেঁপে ওঠে সিলেট। এক মিনিটের ব্যবধানে দুটি ভূকম্পন অনুভূত হলে সিলেটজুড়ে আতঙ্ক দেখা দেয়। এ সময় ভয়ে-আতঙ্ক মানুষজন বাসা থেকে বের হয়ে আসেন।এদিকে রিখটার স্কেলে আজকের ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৩.৮। এর উৎপত্তিস্থল ঢাকা থেকে ১৮৮ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে সিলেট রিজিয়ন এলাকায়।