বুধবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাষ্ট্র পূর্বে তুষারঝড়-পশ্চিমে বন্যায় বিপর্যস্ত।



—————————————————হাকিকুল ইসলাম খোকন ,যুক্তরাষ্ট্র সিনিয়র প্রতিনিধিঃবন্যা ও তুষারঝড়- একই সময়ে দুই প্রাকৃতিক দুর্যোগের হানায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের জনজীবন। দেশটির আবহাওয়া পূর্বাভাস কেন্দ্র ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিসের বরাত দিয়ে শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিসের তথ্য অনুযায়ী, গত বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া প্রবল বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়ার ফলে রাজধানী ওয়াশিংটন, ক্যালিফোর্নিয়াসহ যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলের প্রশান্ত মহাসাগরের উপকূলীয় অঙ্গরাজ্যগুলোতে বন্যা দেখা দিয়েছে।শনিবার বার্তাসংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বরা হয়, বন্যার কারণে রাজধানী ওয়াশিংটনের প্রধান সড়কগুলোর অধিকাংশই ডুবে গেছে। ফলে রাজধানীতে যান চলাচল ব্যাহত হচ্ছে চরমভাবে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইতোমধ্যে বন্যার বিভিন্ন ছবি ও ভিডিও ফুটেজ প্রকাশিত হয়েছে।

একই সময়ে, যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিমে যখন প্রবল বৃষ্টি হচ্ছে- পূর্বাঞ্চলে তখন দেখা দিয়েছে তুষারঝড়। ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিসের তথ্য অনুযায়ী, দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ কেন্টাকি, ভার্জিনিয়া, পেনসিলভেনিয়া, নিউইয়র্ক ও মেরিল্যান্ডে বয়ে গেছে ব্যাপক তুষারঝড়। শনিবার সকালে এই প্রতিটি অঙ্গরাজ্যই ১৫ সেন্টিমিটার (৬ ইঞ্চিরও বেশি) পুরু বরফের স্তরে ঢাকা ছিল।

তুষারঝড়ে সবচেয়ে বিপর্যয়ের মধ্যে পড়েছে ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্য। তুষার ঝড়ের কারণে বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থায় বিপর্যয় ঘটেছে দেশটিতে এবং বর্তমানে ভার্জিনিয়ায় ৫০ হাজারেরও বেশি গ্রাহক বর্তমানে রয়েছেন বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায়।এছাড়া তুষার ঝড় ও বন্যার কারণে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ২ হাজার ৬০০ ফ্লাইট বাতিল হয়েছে।

তবে দেশটির আবহাওয়া দফতরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, খুব শিগগরই এই দুর্যোগ কেটে যাওয়ার আশা নেই। রয়টার্সকে কর্মকর্তারা এ সম্পর্কে বলেন, ‘আমাদের হাতে থাকা তথ্য অনুযায়ী, আজ (শনিবার) অথবা আগামীকালের মধ্যে পশ্চিমাঞ্চলে আরও ঝড়বৃষ্টি ও পূর্বাঞ্চলে অন্তত একটি তুষারঝড় বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’