বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সাংবাদিক পীর হাবিবের মৃত্যুতে সাংবাদিক খোকন ও কবি সালেহ”র শোক।



 

হাকিকুল ইসলাম খোকন ,যুক্তরাষ্ট্র সিনিয়র প্রতিনিধিঃবাংলাদেশ প্রতিদিনের নির্বাহী সম্পাদক ও খ্যাতিমান কলামিস্ট পীর হাবিবুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন সিনিয়র সাংবাদিক ও লেখক হাকিকুল ইসলাম খোকন এবং কবি ও লেখক এবিএম সালেহউদিদন ।

আজ এক শোক বার্তায় তারা বলেন, সাংবাদিক পীর হাবিবুর রহমানের সঙ্গে আমাদের ব্যক্তিগত সম্পর্ক খুব ভালো ছিল। মানুষ হিসেবে তিনি ছিলেন অসাধারণ। সদাহাস্য, প্রাণচঞ্চল এমন একজন মানুষ আজ নেই, এটা ভাবতেই কষ্ট হচ্ছে।খবর বাপসনিউজ।

তারা মরহুমের রুহের আত্মার মাগফেরাত কামনাসহ শোকসন্তপ্ত পরিবারের শান্তি ও রহমত কামনা করেন। সিনিয়র সাংবাদিক ও লেখক হাকিকুল ইসলাম খোকন এবং কবি ও লেখক এবিএম সালেহউদিদন বাপসনিউজকে বলেছেন সাংবাদিক পীর হাবিবুর রহমানের সঙ্গে সর্বশেষ দেখা
কুয়ালালাম পুর । অল ইউরোপীয়ান বাংলাদেশ কনভেনশন ২০১৬ উপলক্ষ্যে দেশের শীর্ষ সাংবাদিক ও কলামিস্টসহ প্রচুর সমাগম ছিল । চারদিন আমরা ছিলাম টুইন টাওয়ার সন্নিকটস্থ ‘বারজায়া টাইমস স্কোয়ার সুবিশাল হোটেলে । বন্ধু পীর হাবীবুর রহমান সবাইকে মাতিয়ে রাখতেন । গল্পচ্ছলে পলেপলে হাসির তরঙ্গে আমরা মেতেছিলাম ।
কথা ছিল স্মৃতির আকরে থাকা সেই বন্ধুর সঙ্গে ঢাকায় গেলে দেখা হবে । কিন্তু আর হল না !তাই ত জানতে ইচ্ছে করে…
🌹💚🌹
॥ তুমি নাই চলে গেলে তাই
আরও কত পর্ব রয়েছে বাকি
নাই কতজন জীবনে হারাই
স্মৃতি যত দু:খ তত,বল কোথায় রাখি ॥
কোন এক মহাময়তায় একে একে চলে যাব সবে
নশ্বর পৃথিবীর সায়নসন্ধ্যায়…

আর কবিগুরু রবীন্দ্রনাথের চিরায়ত কথায় বলে হয় ;
“ অমোঘ যে ডাক সে ডাক দাও,
আর দেরি কেন মিছে ।
যা আছে বাঁধন বক্ষ জড়ায়ে
ছিঁড়ে পড়ে যাক পিছে ।”ছবিতে বাথেকে ৫ম পীর হাবিবুর রহমান,৪থ হাকিকুল ইসলাম খোকন ,৩য় এবিএম সালেহউদিদন এবং অন্যানদের দেখা যাচেছ কুয়ালালামপুরে।