শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জাতীয় স্লোগান “জয় বাংলা “মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত গ্রহণ।



গতকাল রবিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান যে    জয় বাংলা’কে জাতীয় স্লোগান করার বিষয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে। শিগগির মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়।

 

 

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সভাকক্ষ থেকে মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীরা বৈঠকে যোগ দেন।

২০২০ সালে হাইকোর্টের একটি রায়ের কথা জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘আজ কেবিনেটে ‘জয় বাংলা’কে জাতীয় স্লোগান করার বিষয়টি এসেছে। এটা কেবিনেটে আলোচনা হয়েছে। ২০২০ সালে হাইকোর্টে একটি রায়ও আছে, ‘জয় বাংলা’কে জাতীয় স্লোগান হিসেবে বিবেচনা করতে হবে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘কেবিনেটে আলোচনার পর সিদ্ধান্ত হয়েছে, ‘জয় বাংলা’কে কেবিনেট থেকে একটি সার্কুলার দিয়ে জাতীয় স্লোগান হিসেবে প্রচার করে দিতে হবে। আমরা অবিলম্বে একটা নোটিফিকেশন করে দেবো।’ এতে দুই-চারদিনের বেশি সময় লাগবে না বলে জানান তিনি।

 

কোথায় কোথায় ‘জয় বাংলা’ বলতে হবে এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘তিন-চারটি ক্যাটাগরির কথা জাজমেন্টে আছে। সাংবিধানিক পদধারীগণ, রাষ্ট্রের সব কর্মকর্তা-কর্মচারী রাষ্ট্রীয় বা সরকারি অনুষ্ঠানের শেষে এটা বলবেন। মাদরাসাসহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কোনো সভা-সেমিনার যদি হয়, অ্যাসেম্বলি বা যে কোনো ধরনের সমাবেশ হলে সেখানে ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিতে হবে।’