বুধবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ডাক্তার কামরুল স্যারকে অভিনন্দন।



অধ্যাপক ডাঃ কামরুল ইসলাম।আমরা কয়জন চিনি এই রিয়েল লাইফ সেলিব্রিটি বাংলাদেশী ডাক্তারকে?

কোনো পারিশ্রমিক ছাড়াই করেন কিডনি প্রতিস্থাপন।
১৪ বছরে প্রায় ১০০০ কিডনি প্রতিস্থাপন করেছেন।

“স্বাধীনতা পুরুস্কার ” এ ভূষিত হওয়ার পর দেয়া প্রতিক্রিয়ায় সেন্টার ফর কিডনি ডিজিজেস (সিকেডি) এর প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক কামরুল ইসলাম স্যার বলেন;

“আমি কখনোই এমন পুরুস্কার চাইনি।কাজ করে যাচ্ছি মানুষের সেবায় এবং আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য। এসব স্বীকৃতি, পদক আর সুনামের কথা শুনলে ভয় লাগে,দুনিয়াতে আল্লাহ তায়া’লা সব দিয়ে দিচ্ছেন কেন! দুনিয়াতে সব যদি পেয়ে যাই,তাহলে তো আখিরাতে খালি হয়ে যাবে”

গাড়ি না কিনে সেই গাড়ি কেনার টাকায় স্থাপন করেছিলেন বিশেষায়িত হাসপাতাল শ্যামলী সেন্টার ফর কিডনি ডিজিজেস এন্ড ইউরোলজি হাসপাতাল (সিকেডি)। হাসপাতালের নির্ধারিত নুন্যতম খরচ বাদে কিডনি প্রতিস্থাপনের জন্য কোন ফি নেন না অধ্যাপক কামরুল।

১০-১৫ লাখ টাকার ব্যায়বহুল কিডনি প্রতিস্থাপন চিকিৎসাকে অধ্যাপক কামরুল সাধারণ মানুষের জন্য ২.৫০-৩ লাখ টাকার মধ্যে নিয়ে এসেছেন।

আপনার জন্য ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা অধ্যাপক কামরুল স্যার।