বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ইউক্রেন সংকটের প্রধান উসকানিদাতা যুক্তরাষ্ট্র-চীন



——————————————————হাকিকুল ইসলাম খোকন ,যুক্তরাষ্ট্র সিনিয়র পসপ্রতিনিধিঃইউক্রেনের বর্তমান সংকটের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে অভিযুক্ত করেছে চীন। এছাড়া সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে যাওয়ার সাথে সাথে ন্যাটোকে ভেঙে দেওয়া উচিত ছিল বলেও মনে করে দেশটি। শুক্রবার চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান এসব কথা বলেন।ঝাও লিজিয়ান সাংবাদিকদের দেয়া এক ব্রিফিংয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে ‘ইউক্রেন সংকটের অপরাধী এবং প্রধান উসকানিদাতা’ উল্লেখ করে বলেন, দেশটি ১৯৯৯ সালের পর থেকে গত দুই দশকে পাঁচ দফায় ইউরোপের পূর্বাঞ্চলে ন্যাটোকে সম্প্রসারণ করায় নেতৃত্ব দিয়েছে।চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ন্যাটো সদস্য দেশের সংখ্যা ১৬ থেকে বেড়ে ৩০ হয়েছে। তারা পূর্ব দিকে প্রায় ১০০০ কিলোমিটার অঞ্চলে নিজেদের সম্প্রসারিত করেছে। যা রাশিয়া সীমান্তের একদম কাছাকাছি।

তাছাড়া রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা করার পর পশ্চিমাদেশগুলো যে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে এটিরও তীব্র সমালোচনা করেছেন চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র।

তিনি বলেছেন, নিষেধাজ্ঞা দিয়ে সমস্যা সমাধানে বিশ্বাস করে না চীন।

প্রসঙ্গত, ১৯৪৯ সালে ১২ দেশের সমন্বয়ে গঠিত হয় সামরিক জোট ন্যাটো। বর্তমানে জোটটির সদস্য দেশের সংখ্যা ৩০। রাশিয়া শুরু থেকেই ইউক্রেনের ন্যাটোতে যোগদানের বিষয়ে বিরোধিতা করে আসছে। কারণ, এতে হুমকির মুখে পড়তে পারে অঞ্চলটিতে রাশিয়ার নিরাপত্তা।