বুধবার, ১১ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ বৈশাখ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

টুইটারে সরকারি ও বাণিজ্যিক অ্যাকাউন্টে ফি চান ইলন মাস্ক।



————হাকিকুল ইসলাম খোকন ,যুক্তরাষ্ট্র সিনিয়র প্রতিনিধিঃসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার কেনার পর থেকে নিয়মিত আলোচনায় রয়েছেন বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি ইলন মাস্ক। আগামীতে তিনি আর কী কী করতে পারেন বা তার পরিকল্পনায় আর কী রয়েছে? এসব নিয়েও নেট দুনিয়ায় ব্যাপক চর্চা হচ্ছে। আর এর মাঝেই মাস্ক ইঙ্গিত দিয়েছেন যে, আগামী দিনে টুইটার আর বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে না।এটি ব্যবহার করার জন্য গ্রাহকদের অর্থ ব্যয় করা লাগতে পারে। টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় ইলন মাস্ক নিজেই তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার (৪ মে) ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, টুইটার ব্যবহার করার জন্য বাণিজ্যিক ও সরকারি ব্যবহারকারীদের টাকা দিতে হবে বলে জানিয়েছেন ইলন মাস্ক। যদিও সাধারণ ব্যবহারকারীদের জন্য টুইটার বর্তমানের মতো বিনামূল্যেই ব্যবহারযোগ্য থাকবে।ইলন মাস্ক ঘোষণা দেন, টুইটার সব সময়ই সাধারণ ব্যবহারকারীদের জন্য বিনামূল্যে থাকবে। তবে বাণিজ্যিক ও সরকারিভাবে যারা ব্যবহার করছেন; তাদের সামান্য খরচ দিতে হতে পারে।

অবশ্য বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত জানতে রয়টার্সের পক্ষ থেকে বারংবার যোগাযোগ করা হলেও টুইটার এখনো কোনো মন্তব্য করতে সম্মত হয়নি।উল্লেখ্য, রেকর্ড ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে টুইটার কিনে নিয়েছেন ইলন মাস্ক। মূলত এরপর থেকেই অনেক মিডিয়ার রিপোর্টে দাবি করা হয়, সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট এই প্রতিষ্ঠানটিতে খুব দ্রুত অনেক বড় ধরনের পরিবর্তন করতে যাচ্ছেন ইলন মাস্ক।

এমনকি টুইটারের বর্তমান প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) পরাগ আগরওয়াল এবং পলিসি হেড বিজয়া গাড্ডেকে প্রতিষ্ঠান থেকে সরিয়ে দেওয়া হতে পারে বলেও গুঞ্জন উঠেছে।

টুইটার ক্রয়ের পর ইলন মাস্ক বলেছিলেন, যে কোনো গণতন্ত্রের জন্য বাক স্বাধীনতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। টুইটার হলো একটি ডিজিটাল টাউন স্কয়ার, যেখানে মানবতার ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনা করা হয়।তিনি আরও বলেছেন, আমি নতুন বৈশিষ্ট্যগুলোর সঙ্গে টুইটারকে আরও ভালো বা উন্নত করতে চাই। আমরা এর অ্যালগরিদম ওপেন সোর্স রেখে টুইটারের বিশ্বাসযোগ্যতা বাড়াতে চাইছি।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত