শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সঠিক কক্ষপথে কাংক্ষিত লক্ষেই এগুচ্ছে বি অন টিভি ইউ‘কে, ,।




রিয়াদ আহাদ,
হাটিঁ হাটিঁ পা পা করে কমিউনিটির সর্বস্থরের মানুষের ভালোবাসা আর অকুন্ঠ সমর্থনে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়ে ছুটে চলছে প্রিয় বি অন টিভি ইউকে। এখনো আনুষ্টানিকভাবে পুরো যাত্রা শুরু করা হয়নি ; তারপরও প্রবাসী বাঙালী কমিউনিটির কাছে ইতিমধ্যেই যে এতো জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে তা বিঅন টিভি ইউ‘কের সোমবার অনুষ্ঠিত হওয়া ঈদ উদযাপন ও সুধী সমাবেশ না করলে অনুধাবনই করতে পারতাম না। দীর্ঘ সতোরো বছর ধরে কাজ করা চ্যানেল এস ছেড়ে সম্পূর্ণ নতুন আঙ্গিকে ও ভিন্ন পরিকল্পনা নিয়ে বি অন টিভি ইউকে‘র এই নতুন যাত্রায় সর্বস্থরের মানুষের উচ্ছ্বাস আর উদ্দীপ্ত শুভ কামনায় কিছুটা শংকায় ভুগছি। বিঅন টিভি ইউকে নিয়ে কমিউনিটির এতো প্রত্যাশা কি পুরন করতে পারবো ? হয়তো সময় বলতে পারবে সেই উত্তর তবে এটুকু বলতে পারি প্রচেষ্টার কোনো ত্রুটি থাকবে না আমাদের।
সবাইকে নিয়ে আনন্দ করে মুলতঃ সদ্য হওয়া পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন আর বিঅন টিভি ইউকে‘র জন্মস্থান যুক্তরাজ্যের মধ্যভভূমি খ্যাত বার্মিংহামের বাঙালী কমিউনিটির মানুষদের কাছে বিঅন টিভি ইউকে‘র পরিবারকে পরিচয় করিয়ে দিতেই শুধুমাত্র আমন্ত্রিত অতিথিদের নিয়ে এই আয়োজন করা হয়। এতে বার্মিংহাম ছাড়াও পাশর্^বর্তী বিভিন্ন শহরের বাঙালী বংশোদ্ভুত বিভিন্ন কাউন্সিলর,বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ,গণমাধ্যমকর্মীসহ ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ার-সলিসিটর-ব্যবসায়ী-ইসলামিক স্কলার ছাড়াও কমিউনিটির নারী নেত্রীরাও যোগ দেন। নির্ধারিত অতিথিদের সাড়ে তিনশত আসন রাখা হলেও শেষ মুহুর্তে অনুরোধের কারণে তা ছাড়িয়ে সংখ্যা বেড়ে যায় আরো অনেক। বি অন টিভি ইউকের এই ঈদ উদযাপন ও সুধী সমাবেশে আরো অনেকেই অংশ নিতে চাইলেও স্থান সংকুলানে বিব্রত হওয়ার ভয়ে আমন্ত্রন জানাতে পারিনি বলে দুঃখ প্রকাশ করছি। তবে মানুষের এই উচ্ছ্বাস আগ্রহ আমাকে সত্যিই আবেগাপ্লুত করেছে। এতো স্বল্প সময়ে বি অন টিভি ইউকে সবার এতো কাছে পৌছুতে পারবে তা আমার কাছে ছিলো অনেকটাই অপ্রতাশিত। যারা এসেছেন তাদের প্রতি অসংখ্য ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা। এই সমর্থন ও শুভ কামনা আমাদের চলার পথে পাথেয় হয়ে থাকবে। এই প্রাপ্তিতে অবশ্য বি অন টিভি ইউকে‘র সহকর্মীরা বিশেষ করে পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী আব্দুল এম চৌধুরী সুমন,আরেক পরিচালক সুহেল চৌধুরী আর প্রজেক্ট ডেভেলাপমেন্ট কর্মকর্তা নুরুন চৌধুরী কলির অক্লান্ত শ্রম আর মেধার গাঁথুনি ছিলো খুবই শক্ত। এরমধ্যে বলতে গেলে সোমবারের ঈদ পুর্নমিলনীর পুরো অনুষ্টানের পরিকল্পনাই নিয়েছিলেন প্রজেক্ট ডেভেলাপমেন্ট কর্মকর্তা নুরুন চৌধুরী কলি এবং এই ক্বরিৎকর্মা মানুষটির জন্যই আমরা এই আয়োজনে উদ্যোগী হয়েছিলাম। এছাড়া অন্য দুই পরিচালক আব্দুল ইকবাল ও সুফিয়া আলম এবং এক্্িরকিউটিভ কমিটির প্রধান এনাম চৌধুরী,এক্্িরকিউটিভি মেম্বার ব্যারিষ্টার শাম উদ্দিন,কাউন্সিলর সাদেক মিয়া শামসু ও সাজনা আমালিয়া বেগমসহ অন্যান্যদের দিক নির্দেশনাও একটা বড় শক্তি হিসেবে কাজ করেছে। এছাড়া বিঅন টিভি ইউকের অনুষ্টানামালার প্রধান সমন্বয়ক নিগার সুলতানা জলি,অনুষ্টান সহযোগি শিপন আহমেদ,আনোয়ার হোসেন,জয়নাল আহমেদ,রাকিব আহমেদ,সংবাদ প্রতিনিধি আহমেদ কাবির,আহমেদ সুহেল,উম্মে শারমীন,আয়েশা বেগম,নিউজ এডিটর মাহবুবুল হাসান শরীফের পাশাপাশি সেলস এন্ড মার্কেটিং প্রধান আবু এইচ চৌধুরী সুইট,অন্যতম প্রযোজক জুবের আলম ও অফিস এসিসটেন্ট মিজান রেজা চৌধুরীর ভুমিকাও কম ছিলো না। আর অনুষ্টান উপস্থাপক খসরু খান,আমিরুল ইসলাম বেলাল,লোকমান হোসেন কাজী,সমুছ মিয়া,ফজলি বিবি,আসমা চৌধুরী,বেলাল বদরুল,মৌলানা এনামুল হাসান সাবির,শেবুল চৌধুরী,শারাফ খান,ফেরদৌস খোন্দকার,লিজা পারভেজ,ফিরোজ রাব্বানি,রাশিয়া খাতুনসহ আমাদের বিভিন্ন অনুষ্টানের সঞ্চালক এবং কারিগরি কর্মের নেপথ্য মানব-মানবীদের ভূমিকাও ছিলো উল্লেখ করার মতো। সর্বোপরি একেবারে লেস্টার থেকে শুরু করে কভেন্ট্রি,সান্ডওয়েল ও বার্মিংহামের বাঙালী কাউন্সিলরবৃন্দসহ মিডল্যান্ডসের কমিউনিটির সর্বস্থরের মানুষের অংশগ্রহনেই আমাদের ঈদ পুর্নমিলনিটি অন্যতম একটি সফল অনুষ্টানে পরিণত হয়েছিলো। অনুষ্টানে আগত অনেকেরই ছবি না পাওয়ায় সব ছবি আপলোড করতে পারছিনা বলে দুঃখিত এবং এই বিষয়টিকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন বলে আমার বিশ^াস।
বি অন টিভি ইউকে‘র এই ঈদ পুর্নমিলনীতে যারাই এসেছেন তাদের অধিকাংশই আমাদের ষ্টুডিও ভিসিট করে এডিটিং রুম,ড্রেসিং রুম,কনফারেন্স রুম ও অত্যাধুনিক সর্বশেষ প্রযুক্তি দিয়ে ষ্টুডিওর সেট আপ দেখে প্রশংসার ফুলঝুড়িতে ভাসিয়েছেন আমাদের। কিন্তু ভয়টা সেখানেই —- বিঅন টিভি ইউকে নিয়ে কমিউনিটির মানুষের এই যে প্রত্যাশা তা কাতোটুকু পুরণ করতে পারবো তা হয়তো সময় বলতে পারবে ; কিন্তুু এইটুকু বলতে পারবো প্রত্যাশার চাপ যাই-ই থাকুক আমরা আমাদের সর্ব্বোচ্চ দিয়েই চেষ্টা করে যাবো। সফল হবার প্রত্যয় নিয়েই আমাদের যে পথচলা তা বিফল হবে না ইনশাল্লাহ। তবে সোমবারের অনুষ্টান আয়োজন করে এইটুকু অন্ততঃ অনুধাবন করতে পেরেছি সঠিক কক্ষপথে কাংক্ষিত লক্ষেই এগুচ্ছে বি অন টিভি ইউ‘কে।
যাদেরকে এই অনুষ্টানে আমন্ত্রন জানাতে পারিনি তাদের কাছে আবারো ক্ষমা প্রার্থনা করছি ; আর প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি খুব শীঘ্রই যুক্তরাজ্যসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশের কমিউনিটির র্শীষজনসহ সর্বস্থরের প্রবাসীর উপস্থিতিতে বি অন টিভি ইউকে‘র পুরোপুরি সম্প্রচারের আনুষ্টানিক ঘোষনার জন্য যে বিশাল আয়েজন করার পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে সেখানে অবশ্যই আমন্ত্রণ করা হবে অধিকংশদেরই। সবাই ভালো থাকবেন আর অবশ্যই বেশী বেশী করে বি অন টিভি ইউকে‘র অনুষ্টান দেখে পরামর্শ দিয়ে আপনাদের সহযোগিতার হাতকে আরো প্রসারিত করবেন।
*********************************
রিয়াদ আহাদ,
হেড অফ প্রোগ্রামস
বি অন টিভি ইউ‘কে