বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বর্ষীয়ান সাংবাদিক তোয়াব খানের মৃত্যুতে বৃটেন প্রবাসীদের শোক প্রকাশ,।




বদরুল মনসুর,
জাস্টিস ফর বাংলাদেশ জেনোসাইড ১৯৭১ ইউকের সভাপতি.ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত-বার্ষিকী মুজিববর্ষ সার্বজনীন বিশ্বময় উদযাপন নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব সাবেক ছাত্রনেতা মোহাম্মদ মকিস মনসুর,
জাস্টিস ফর বাংলাদেশ জেনোসাইড ১৯৭১ ইউকের সাধারন সম্পাদক লিয়াকত আলী, ও সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ শাফি কাদির, ইউকে বিডি টিভির ম্যানেজিং ডিরেক্টর খায়রুল আলম লিংকন, পোগ্রাম ডিরেক্টর হেলেন ইসলাম,
সোয়ানসী থেকে ৭১ এর বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবুল খান, সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ একযুক্ত বিবৃতিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাবেক প্রেসসচিব ও প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশের (পিআইবি) মহাপরিচালক বর্ষীয়ান সাংবাদিক তোয়াব খান এর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ ও শোকাবহ পরিবারবর্গ এর প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন সহ মহাণ আল্লাহু রাব্বুল আলামিন যেনো উনাকে জান্নাতবাসী করেন এই দোয়া করার জন্য সবার প্রতি বিনীতভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন।
শোকবার্তায় জাস্টিস ফর বাংলাদেশ জেনোসাইড ১৯৭১ ইউকের সভাপতি.ও ইউকে বিডি টিভির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মকিস মনসুর বলেন ২০১৬ সালে একুশে পদক পাওয়া তোয়াব খানের সাংবাদিকতা জীবনের শুরু ১৯৫৩ সালে সাপ্তাহিক জনতার মাধ্যমে। ১৯৫৫ সালে যোগ দেন দৈনিক সংবাদে। ১৯৬১ সালে তিনি দৈনিক সংবাদের বার্তা সম্পাদক হন। এরপর ১৯৬৪ সালে যোগ দেন দৈনিক পাকিস্তানে। দেশ স্বাধীনের পর দৈনিক পাকিস্তান থেকে বদলে যাওয়া দৈনিক বাংলার প্রথম সম্পাদক ছিলেন তোয়াব খান।
তিনি মুক্তিযুদ্ধের সময় স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রে শব্দসৈনিকের ভূমিকা পালন করেন তোয়াব খান। সে সময় তার আকর্ষণীয় উপস্থাপনায় নিয়মিত প্রচারিত হয় ‘পিণ্ডির প্রলাপ’ নামের অনুষ্ঠান। তার মৃত্যুতে শুধু সাংবাদিকতা বা গনমাধ্যমের নয় সমগ্র বাঙালির জাতির অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে।