শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিসিএ রেষ্টুরেন্ট অফ দ্যা ইয়ার-প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত।



যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশী কারী ইন্ড্রাস্ট্রির বৃহত্তম সংগঠন বাংলাদেশ ক্যাটার্রাস এসোসিয়েশন (বিসিএ) বর্ণাঢ্য আয়োজনে ১৬তম বিসিএ এওয়ার্ড অনুষ্ঠান আগামী ৩০ অক্টোবর, রবিবার লন্ডনের বিখ্যাত পার্ক প্লাজায় অনুষ্ঠিত হবে। কারী ইন্ড্রাস্ট্রি নিয়ে বিসিএ’র ধারাবাহিক কাজের প্রেরণা ও সাফল্যগুলোকে ক্যাটারার্স ও কারী লাভার্সদের হৃদয়ের আরও কাছে নেয়ার লক্ষ্যে এবারের এওয়ার্ড এর শ্লোগাণ হচ্ছে- সেলিব্রেটিং সাকসেস এন্ড ইন্সপায়ারিং আদারর্স।

এওয়ার্ড কে সামনে রেখে ১২ সেপ্টেম্বর বুধবার দুপুর ১২টায় পূর্ব লন্ডনের স্টার্ডফোর্ড এর হলিডে ইন এক্সপ্রেস এ অনুষ্ঠিত হয়েছে -বিসিএ রেষ্টুরেন্ট অফ দ্যা ইয়ার প্রতিযোগিতা।

বিসিএ রেষ্টুরেন্ট অফ দ্যা ইয়ার- ব্রিটেনে বাংলাদেশী কারী ইন্ডাষ্ট্রির একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় প্রতিযোগিতা। ব্রিটেনের একশত রেষ্টুরেন্ট প্রতিযোগির মধ্য থেকে যাচাই –বাচাই করে ৪০টি রেষ্টুরেন্টকে এই প্রতিযোগিতার জন্য সর্ট লিস্ট করা হয়।

প্রতিযোগিতায় বাচাইকৃত ৪০টি রেষ্টুরেন্ট তাদের ব্যবসায় প্রবর্তিত নতুন ক্রিয়েটিভ চিন্তার সমন্বয়, ডিজাইন ও ডেকোর, উদ্ভাবিত মৌলিক কারী ডিস, খাবারের গুণগত মান,পরিবেশন ও হাইজিং স্ট্যান্ডার্ড এবং কাস্টমারদের মন্তব্য ইত্যাদি বিবেচনায় রেখে ৪০টি রেষ্টুরেন্টকে প্রতিযোগিতার জন্য নির্বাচিত করা হয়।

প্রতিযোগিতা থেকে সেরা দশটি রেষ্টুরেন্টকে লন্ডনের বিখ্যাত পার্ক প্লাজায় আগামী ৩০ অক্টোবর ১৬তম বিসিএ এওয়ার্ড অনুষ্ঠানে পুরস্কৃত করা হবে।
বিসিএ রেষ্টুরেন্ট অফ দ্যা ইয়ার এর বিচারক প্যানেলে ছিলেন কোবরা বিয়ারের গ্লোবাল ডাইরেক্টর সামসন সোহেইল ও হেড অফ সেইল এড্রিন ডেবলিন,উবার ইটস এর টেটিটরি ম্যানেজার জামেইল এজ, লন্ডন টি একচেইঞ্জ এর ফ্রাঞ্চাইজ ডাইরেক্টর আব্দুল করিম নাজিম।

শুরুতে ভূমিকা বক্তব্য ও অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রেষ্টুরেন্ট অফ দ্যা ইয়ার কমিটির আহবায়ক ফজলে রাব্বি চৌধুরী। তিনি বলেন, বিসিএ যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশী কারী ইন্ড্রাস্ট্রির অতীত ঐতিহ্য ও আগামীর সম্ভাবনার দিকগুলোকে সামনে রেখে রেষ্টুরেন্ট অফ দ্যা ইয়ার- প্রতিযোগিতাটি পরিচালিত হচ্ছে। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহনকারীদের প্রাথমিক যাচাই – বাচাই থেকে শুরু করে চুড়ান্ত নির্বাচন পর্যন্ত এওয়ার্ড কমিটি অত্যন্ত স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় বিধিবদ্ধ নিয়মেই করা হয়েছে। আমাদের বিশ্বাস এবারের সেরা দশ বিজয়ী রেস্টুরেন্ট যুক্তরাজ্যে তাদের মৌলিক ও সৃজনশীল গুণগত মান নিয়ে বাংলাদেশী কারী ইন্ড্রাস্ট্রির নাম উজ্জ্বল করবে।

আহবায়ক ফজলে রাব্বি চৌধুরী প্রতিযোগীতায় অংশ নেয়া প্রতিযোগী ও বিচারকবৃন্দ সহ বিসিএ’র সকল সদস্যদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, সকলের সমন্বিত সহযোগিতায় এই কাজটি সফলভাবে করা সম্ভব হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিসিএর পক্ষ থেকে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিসিএ প্রেসিডেন্ট এম এ মুনিম, সেক্রেটারী জেনারেল মিঠু চৌধুরী, বিসিএ এওয়ার্ড কমিটির আহবায়ক মুজিবুর রহমান ঝুনু, সাবেক প্রেসিডেন্ট বজলুর রশীদ এমবিই ,পাশা খন্দকার এমবিই ও কামাল ইয়াকুব, সাবেক সেক্রেটারী জেনারেল ওলি খান এমবিই, ডেপুটি সেক্রেটারী হেলাল মালিক ও প্রেস এন্ড পাবলিকেশন সেক্রেটারী ফরহাদ হোসেন টিপু, মেম্বারশীপ সেক্রেটারী ইয়ামিন দিদার প্রমুখ।

এছাড়াও অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, বার্কিং এন্ড ডেগেনাম কাউন্সিলের মেয়র কাউন্সিলার ফারুক চৌধুরী, টাওয়ার হ্যামলেটস এর সাবেক স্পিকার আহবাব হোসেন, কাউন্সিলার রিটা বেগম, জালালাবাদ এসোসিয়েশন ইউকের প্রেসিডেন্ট মুহিবুর রহমান ও রয়েল রিজেন্সির ডাইরেক্টর আব্দুল বারী প্রমুখ।

বক্তারা বিসিএ রেষ্টুরেন্ট অফ দ্যা ইয়ার এর প্রশংসা করে বলেন- এধরণের উদ্যোগ কারী শিল্পকে আরও সমৃদ্ধ করবে। ব্রিটেনের খাবার সংস্কৃতিতে বাংলাদেশী কারী শিল্প অনেক বড় অবদান রাখছে উল্লেখ করে বলেন, ব্রিটেনে সেরা মান ও সেরা ব্রান্ডের বাংলাদেশী ক্যুজিন কে কারী লাভার্সদের কাছে তুলে ধরতে বিসিএর ভূমিকা অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত।

১৯৬০ সালে প্রতিষ্ঠিত বিসিএ বাংলাদেশী কারী ইন্ড্রাস্ট্রির সাফল্য, সমস্যা ও সম্ভাবনার নানাদিক নিয়ে ধারাবাহিকভাবে কাজ করছে উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, বিসিএ কারী এওয়ার্ড ব্রিটেনের কারী ইন্ড্রাস্ট্রিতে অত্যন্ত মর্যাদাকর একটি এওয়ার্ড। ১৬তম এওয়ার্ড করোনা পরবর্তি সময়ের অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় রেস্টুরেন্ট ব্যবসায়ী ও রেষ্টুরেন্ট কর্মী সহ কারী ইন্ড্রাস্ট্রি সংশ্লিষ্টদের অনুপ্রেরণা যোগাবে।

বিসিএ প্রেসিডেন্ট এম এ মুনিম,সেক্রেটারী জেনারেল মিঠু চৌধুরী উপস্থিত সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন ৩০ অক্টোবর লন্ডনের বিখ্যাত পার্ক প্লাজায় ১৬তম বিসিএ এওয়ার্ড অনুষ্ঠানে ব্রিটেনের বিশিস্টজন ও সেলিব্রেটিদের উপস্থিতিতে সেরা দশ বিজয়ীকে পুরস্কৃত ও এওয়ার্ড করা হবে।

অনুষ্ঠানে বিসিএ’র বিভিন্ন রিজওনের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ প্রেরক
ফরহাদ হোসনে টিপু
প্রেস ও পাবলিসিটি সেক্রেটারী, বিসিএ, ফোন : 07949922122
তারিখ : ১২.০৯.২০২২